১৪ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লায় এক শনিবারে বিয়ে, পরের শনিবার লাশ হয়ে বাড়িতে! আইসিইউতে স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
বিয়ের মেহেদি না শুকাতেই মর্মান্তিক মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন সৌদিপ্রবাসী আকতার হোসেন (৩২)। একই দুর্ঘটনায় মারাত্মকভাবে আহত হয়ে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) আছেন স্ত্রী সুবর্ণা আক্তার (১৯)। কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার নিমসার এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে শনিবার (৪ মে) দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী আব্দুর রাজ্জাক জানান, এ দম্পতি মোটরসাইকেলে করে চান্দিনার দিকে যাচ্ছিলেন।

এ সময় নিমসার এলাকায় চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ঢাকামুখী একটি বাসের চাপায় তাঁরা মারাত্মকভাবে আহত হন। তাঁদের চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর আকতার হোসেনকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় নিহতের স্ত্রী সুবর্ণা আক্তারকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে আইসিইউতে ভর্তি করান।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, চান্দিনা উপজেলার চান্দিয়ারা গ্রামের কালু ড্রাইভারের ছেলে আকতার হোসেন দীর্ঘদিন সৌদি আরবে ছিলেন।

ছুটিতে বাড়িতে এসে গত ২৭ এপ্রিল কুমিল্লার সদর উপজেলার শংকরপুর গ্রামে বিয়ে করেন। শুক্রবার মোটরসাইকেলে করে স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি যান এবং শনিবার স্ত্রীকে নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় তাঁর মৃত্যু হয়।

স্থানীয় বাসিন্দা জামাল হোসেন জানান, এক শনিবার বিয়ে করেছেন, পরের শনিবার লাশ হয়ে বাড়িতে ফিরলেন! এমন হৃদয়বিদারক ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

ময়নামতি হাইওয়ে ক্রসিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ইকবাল বাহার মজুমদার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘দুর্ঘটনা পর পর আমাদের টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে পায়নি।

পরে খোঁজ নিয়ে মরদেহ উদ্ধার করলেও পরিবারের দাবিতে বিনা ময়নাতদন্তে তা পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।’

আরো দেখুন
error: Content is protected !!