২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লার চান্দিনায় পরোকিয়ার জেরে যুবককে হ’ত্যা; স্বামী-স্ত্রী গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
কুমিল্লার চান্দিনায় যুবকের বস্তাবন্দী পুকুর থেকে লাশ উদ্ধারের ঘটনায় এক নারীসহ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পরোকিয়ার জের ধরে পরিকল্পিত ভাবে এ হত্যাকান্ড ঘটেছে বলে পুলিশ জানায়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো- সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক থানার গাবুর গাঁও গ্রামের ফাতেম বেগম ও তার স্বামী শুক্কুর আলী।

শুক্রবার বেলা ১২ টায় কুমিল্লা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলণ কক্ষে সাংবাবিকদের এসকল তথ্য জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) মোঃ নাজমুল হাসান।

তিনি জানান, বুধবার (৯ আগস্ট) সন্ধ্যায় চান্দিনা উপজেলার মাইজখার ইউনিয়নের করতলা গ্রামের ছাড়াগাঁও নামক পাড়া থেকে ওই লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত যুবকের নাম মো. আরিফ হোসেন (৩০)। সে সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক উপজেলার সাতগাও গ্রামের আলাই মিয়ার ছেলে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও জানান, নিহত আরিফের সাথে গ্রেফতারকৃত ফাতেমা বেগমের পরোকিয়া ছিলো।

এক মাস পূর্বে ফাতেমা বেগম স্বামীর বাড়ী থেকে পালিয়ে নিহত আরিফের ভাড়া বাড়ীতে চলে আসে। উভয়ে এক মাস স্বামী স্ত্রী পরিচয়ে ভাড়া বাড়ীতে থাকার পর ফাতেমা বুঝতে পারে আরিফ তাকে বিয়ে না করে প্রতারণা করছে।

তাই সে তার পূর্বের স্বামীকে নিয়ে আরফিকে হত্যার পরিকল্পনা করে। গত ৭ আগষ্ট রাতে ফাতেমা ও তার স্বামী শুক্কুর আলী আরিফকে বালিশ চাপা ও সাবল দিয়ে আঘাত করে হত্যা করে লাশ বস্তাবন্দি করে পুকুরে ফেলে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ১০ আগষ্ট রাতে জেলার দেবিদ্বার উপজেলার ওয়াহিদপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুই আসামীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

শুক্রবার গ্রেফতারকৃত আসামীদের কুমিল্লা আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!