bn বাংলা
১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গরমে ঘামাচির সমস্যা থেকে বাঁচার সহজ উপায়

এই গরমে অনেকেই ঘামাচির যন্ত্রণায় আছেন। অনেক চেষ্টা করেও কমাতে পারছেন না ঘামাচি। এবার জেনে নিন এই গরমে ঘামাচির সমস্যা থেকে বাঁচবেন যেভাবে।

ঘামাচির সুনির্দিষ্ট কোনো ওষুধ নেই। পাউডার ব্যবহার করলে প্রাথমিকভাবে উপশম হয়। তবে পরদিন যেখানে পাউডার লাগিয়েছেন সে জায়গাটি পানি দিয়ে ধুয়ে দিন।

ঘামাচির সুনির্দিষ্ট কোনো ওষুধ নেই। পাউডার ব্যবহার করলে প্রাথমিকভাবে উপশম হয়। তবে পরদিন যেখানে পাউডার লাগিয়েছেন সে জায়গাটি পানি দিয়ে ধুয়ে দিন।

ঘামাচি প্রতিরোধে বরফ ভালো কাজ করে। বরফ একটি কাপড়ে পেঁচিয়ে ঘামাচির স্থানে ৫ থেকে ১০ মিনিট সেঁক দিন। এটি ঘামাচি মেরে ফেলে লাল হওয়া কমিয়ে দিয়ে থাকে।

ঘামাচি প্রতিরোধে বরফ ভালো কাজ করে। বরফ একটি কাপড়ে পেঁচিয়ে ঘামাচির স্থানে ৫ থেকে ১০ মিনিট সেঁক দিন। এটি ঘামাচি মেরে ফেলে লাল হওয়া কমিয়ে দিয়ে থাকে।

বেসন ও পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্টটি ঘামাচির স্থানে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি চুলকানি দূর করে ঘামাচি দূর করে দেবে।

বেসন ও পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্টটি ঘামাচির স্থানে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি চুলকানি দূর করে ঘামাচি দূর করে দেবে।

নানা ভেষজ গুণে সমৃদ্ধ মুলতানি মাটির সঙ্গে দুই অথবা তিন টেবিল চামচ গোলাপ পানি মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্টটি ঘামাচির স্থানে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এক মুঠো নিমপাতা গুঁড়ো করে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি ঘামাচির স্থানে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

নানা ভেষজ গুণে সমৃদ্ধ মুলতানি মাটির সঙ্গে দুই অথবা তিন টেবিল চামচ গোলাপ পানি মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্টটি ঘামাচির স্থানে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এক মুঠো নিমপাতা গুঁড়ো করে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি ঘামাচির স্থানে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!