bn বাংলা
১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এই ১০টি সাধারন টিপস আপনাকে নখ কামড়ানোর বদভ্যাস থেকে মুক্ত করবে

লাইফস্টাইল ডেস্ক
নখ কামড়ানো খুব বিশ্রী একটি বিষয়। এর কারণে নানা জীবাণু হাত থেকে মুখের মাধ্যমে শরীরের ঢুকে পড়ে। সাধারণত ভয়, রাখ অথবা অন্যমনস্কতার কারণে নিজের অজান্তেই বারবার মুখে আঙুল চলে যায়। তাই মস্তিষ্ককে সচেতন না করতে পারলে কোনো বদভ্যাসই দূর করা যায় না।

‘দেহ’ নখ কামড়ানো থেকে আপনাকে মুক্ত করার জন্য ১০টি উপায় খুঁজে বের করেছে। এই টিপসগুলো মেনে চললে আশা করি খুব অল্প সময়ের মধ্যেই এই অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পাবেন।

১. নখ যতটা নখ কামড়ানো বদভ্যাস থেকে দূরে রাখেসব সময় নখ ছোট রাখার চেষ্টা করুন। যখনই দাঁত দিয়ে কামড়ানোর মতো অবস্থায় যাবে তার আগেই নখ কেটে ফেলুন। সাধারণ মানুষের জন্য নখের যে মাপ অগ্রাহ্য করা যায় তাতোটুক বড় রাখাও চলবে না। এতটা ছোট করুন যেন নেইল কাটার দিয়ে আর কাটা সম্ভব নয়। এতে কামড়ানোর মত নখ আর আপনার হাতে থাকবে না।

২. নখে ব্যান্ডেজ পড়ুননখ কামড়ানো থেকে নিজেকে সংবরণ করা যদিও খুব কষ্টকর বিষয় তবুও এই অভ্যাস আপনাকে বাদ দিতেই হবে। এর জন্য হাত মোজা পড়তে পারেন। আর তা সম্ভব না হলে নখের উপর আঠালো ব্যান্ডেজ লাগিয়ে রাখুন। যখন এমন ব্যান্ডেজ লাগিয়ে রাখবেন তখন প্রতিবারই আপনার মনে পড়বে নখ কামড়ানো উচিৎ নয়। তবে নিয়মিত ব্যান্ডেজ পরিবর্তন করতে ভুলবেন না। কারণ ব্যান্ডেজ ময়লা হয়ে গেলে তা থেকে আবার অন্য অসুখ তৈরি হতে পারে।

৩. নখ কামড়ানো বদভ্যাস কাটাতে আঙুলকে ব্যস্ত রাখেআমাদের অনেকেরই অনেক ধরনের শখ থাকে। চাইলেই নখ কামড়ানো থেকে নিজেকে বিরতে রাখার জন্য প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা হিসাবে এই শখগুলোকে কাজে লাগাতে পারেন। চাইলেই আপনার শখ অনুযায়ী আলপনা করা, ছবি আঁকা, সেলাই করা অথবা কিছু বোনার কাজে আঙুল ব্যস্ত রাখা যায়।

৪. মুখটাও ব্যস্ত রাখুনযদি আপনার মুখটাও ব্যস্ত রাখতে পারেন তাহলেও নখ কামড়ানো থেকে বেঁচে যাবেন। দেখবেন কিছু দিনের মধ্যে আর মুখে হাত যাবে না। আর এই জন্য চুইংগাম অথবা শক্ত ক্যান্ডি মুখে রাখতে পারেন। হাতের কাছে একটি পানির বোতলও রাখুন যেন মুখের কাছে আঙুল গেলেই পানির বোতল হাতে নিয়ে এক চুমুক পানি খেয়ে নেওয়া যায়। এতে মস্তিষ্ক বিভ্রান্ত হয়ে আপনাকে নখ কামড়ানো থেকে বিরত রাখবে।

৫. তিতা নেইল পলিস নখ কামড়ানো বদভ্যাস কমায়এমন নেইলপলিস ব্যবহার করুন যা তিতা গন্ধযুক্ত। এই ধরণের নেইল পলিস কিনতে পাওয়া যায় এবং এতে ক্ষতিকর রাসায়নিক থাকে না, আর দীর্ঘক্ষণ এর গন্ধ টিকে থাকে। নখ ও নখের আশেপাশে এই নেইল পলিস লাগিয়ে নিন। এর অস্বস্তিকর গন্ধের কারণে মুখের কাছে আঙুল গেলে নখ না কামড়ানোর কথা মাথায় আসবে।

৬. হাত ভিজিয়ে নিনযখনই নখ কামড়ানোর ইচ্ছা হবে তখন ময়েশ্চারাইজার মেখে হাত নিন। এতে দুইটি উপকার পাবেন। প্রথমত আপনার নখ কামড়ানো দূর হবে, দ্বিতীয়ত হাত ধীরে ধীরে মোলায়েম হতে শুরু করবে।

৭. নখ কামড়ানো বদভ্যাস দূর করতে নেইল ফাইল সাথে রাখুননেইল ফাইল নিশ্চয়ই চেনেন, যেটা দিয়ে নখ ঘষে ঘষে সুন্দর গড়ন দেওয়া হয়। আকারে খুব বেশি বড় না বলে এটি খুব সহজেই সাথে রাখা যায়। যখনই আপনার মনে হবে হাত মুখের কাছে চলে যাচ্ছে তখনই এই ফাইল বের করে বাড়তি নখ ঘষে ঠিক করে নিন। এটা অনেকটা অন্যায় করলে শাস্তি দেওয়ার মতো। যখনই মুখের কাছে হাত যাবে তখনই নেইল ফাইল বের করে নখ ঘষে নিন।

৮. হাতের রাবার ব্যান্ড পড়ুনমনোযোগ সরানোর জন্য হাতে রাবার ব্যান্ড পড়ুন, এতে নখ কামড়ানোর অভ্যাস দূর হবে। কীভাবে? এটা মূলত মনোযোগ ফেরানোর কৌশল হিসাবে ব্যবহার হয়। যখনই মনে হবে হাত উপরে উঠে যাচ্ছে তখনেই এই ব্যান্ডগুলোর দিকে চোখ পড়বে এবং আপনি ব্যান্ড ধরে টেনে হাত নিচে নামিয়ে আনবেন।

৯. দুই হাতে ফোন ব্যবহার করুনআপনার ফোন হতে পারে সবচেয়ে কার্যকর প্রতিরোধক, যা আপনাকে নখ কামড়ানোর অভ্যাস থেকে দূরে রাখতে পারে। কিন্তু আমরা সাধারণত এক হাতেই ব্যবহার করে অভ্যস্ত। এর ফলে একটা হাত ফাঁকা থাকে। তাই দুই হাতে ফোন ব্যবহার করার অভ্যাস করলে অন্য হাতটিও ব্যস্ত থাকবে। আর এতে নখ কামড়ানোর অভ্যাসও চলে যাবে।

১০. নোটিশ টানিয়ে রাখুনঘরের বিভিন্ন জায়গায় ‘নখ কামড়ানো যাবে না’ লেখা নোটিশ টানিয়ে রাখুন, যেন বারবার সেগুলোর উপর আপনার চোখ পড়ে। মোবাইল ও ল্যাপটপের ওয়ালপেপারও পরিবর্তন করে নিতে পারেন এই নোটিশ লিখে।

আপনার কি নখ কামড়ানোর বদ অভ্যাস আছে? যদি থাকে তাহলে এই টিপসগুলোর কোনটি আপনি প্রয়োগ করতে যাচ্ছেন আমাদের জানান।-ধন্যবাদ

আরো দেখুন
error: Content is protected !!