bn বাংলা
২রা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৮ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লায় ঈদের দিনে ১০ পাউন্ডের কেক কেটে ব্যতিক্রমী ঈদ আনন্দ -জাগ্রত মানবিকতা

সৈয়দ বদরুদ্দোজা টিপু

❤️ আমাদের ঈদ ❤️
একবার হেলথ ক্যাম্পের সময় সরকারি শিশু পরিবার এতিমখানা সংগ্রাইশের বাচ্চারা বলেছিলো তারা কাপ আইসক্রিম খেতে চায়।অনেকদিন কাজের ব্যস্ততায় তাদের সাথে দেখা হয় না । তাই আজ ঈদের এই বিশেষ দিনে যে বাচ্চাগুলো পরিবার থেকে দূরে আছে তাদের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগী করতে সাথে ছিলো জাগ্রত পরিবার ।

ঈদের দিনে কুমিল্লা সংরাইশ সরকারি শিশু পরিবারের (বালিকা) অসহায় শিশুদের নিয়ে ব্যতিক্রমী ঈদ আনন্দ নিয়ে হাজির হলেন সামাজিক সংগঠন ‘জাগ্রত মানবিকতা’র প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারণ সম্পাদক তাহসিন বাহার সূচনা এবং কুমিল্লা জেলা ক্রিকেট কমিটির সভাপতি ও বিসিবির কাউন্সিলর সাইফুল আলম রনি।

শিশুদের নিয়ে কেক কেটে ঈদ আনন্দের মাত্রাটা বাড়িয়ে দিলেন বহুগুণ। ১০ পাউন্ড কেক, আইসক্রীম ও কোমল পানীয় বিতরণ করলেন নিজ হাতে। এসব সামগ্রী পেয়ে আনন্দে উল্লাসে মাতোয়ারা মা বাবার আদর সোহাগ বঞ্চিত এই শিশুগুলো।

গতকাল বিকেলে সংরাইশ সরকারি শিশু পরিবারে এসব সামগ্রী বিতরণ করে সামাজিক সংগঠন ‘জাগ্রত মানবিকতা’।এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক জেড এম মিজানুর রহমান খান, শিশু পরিবারের উপ-তত্ত্বাবধায়ক শরফুন্নাহার মনি, ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সাইফ উদ্দিন রনী, টেলিভিশন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন কুমিল্লার সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসাইন আকাইদ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্য ও জাগ্রত মানবিকতার সদস্য মোহাম্মদ ইকরামুল হক, জাগ্রত মানবিকতার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও কুমিল্লা ক্রিকেট কমিটির সদস্য কাউছার জামান কায়েসসহ জাগ্রত মানবিকতার ভলেন্টিয়ার কো অর্ডিনেটর সাগর আহমেদ মিশার, মাসুদ রানা, স্বপ্নীল সাইমুন, বাপ্পি, সুজিত, বাবু, তুহিন, সাজিদ, রাফি।শিশু পরিবারের নিবাসী জোনাকী, তাহমিনা, জান্নাত, মনিরা, শারমিন, সাবরিন, তাইফা, মরিয়ম, খুশি ও নুরজাহান জানান, প্রতি ঈদের দিনে সূচি আপা আমাদের জন্য নতুন নতুন উপহার নিয়ে আসে। তাদের কাছ থেকে বাবা মায়ের আদর সোহাগ পাই। আমরা ভুলে যাই বাবা মায়ের অভাব। কুমিল্লা ক্রিকেট কমিটির সভাপতি ও বিসিবির কাউন্সিলর সাইফুল আলম রনি বলেন, আমি সবসময় তাদের পাশে থাকার চেস্টা করি আর আমি চাই আমার মত অন্যরাও তাদের পাশে দাড়ানোর জন্য যাতে অন্ততপক্ষে এরা মানসিকভাবে ভাবতে পারে তাদেরও এই সমাজে অভিভাবক রয়েছে৷‘জাগ্রত মানবিকতা’র প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারণ সম্পাদক তাহসিন বাহার সূচনা বলেন, সুবিধাবঞ্চিত এসব শিশুদের জন্য আমার এই কার্যক্রম অতীতের ন্যায় ভবিষ্যতেই অব্যাহত থাকবে এবং তাদের মাঝে আমি আমার প্রাণের টানে ঈদের আনন্দে ভাগাভাগি করতে ছুটে আসি৷ এসব শিশুদের নিয়ে আমার ব্যাপক ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা রয়েছে৷শিশু পরিবারের ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য সাইফ উদ্দিন রনী জানান, মা বাবার আদর সোহাগ বঞ্চিত এসব অসহায় শিশু পাশে সামাজিক সংগঠন ‘জাগ্রত মানবিকতা’র সাধারন সম্পাদক তাহসিন বাহার সূচনা ও কুমিল্লা ক্রিকেট কমিটির সভাপতি ও বিসিবির কাউন্সিলর সাইফুল আলম রনির মত সমাজের আইকন দাড়ালে বাচ্চারা কিছুটা সময়ের জন্য হলেও তাদের বাবা মায়ের অভাব ভুলে যায় । এছাড়া কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আ.ক.ম বাহাউদ্দিন বাহার মহোদয় শিশু পরিবারের সদস্যদের ব্যপারে আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।জেলা সমাজ সেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক জেড এম মিজানুর রহমান খান জানান, শিশু পরিবারের সদস্যরা সাধারন পরিবারের শিশুদের মত বেড়ে উঠতে পারে না। সামাজের প্রতিষ্ঠিত লোকজন তাদের সাথে সময় কাটালে, তাদের মানসিক দুর্বলতা কেটে যায়। বাচ্চাদের সময় দিয়ে সবসময় পাশে থাকার জন্য ‘জাগ্রত মানবিকতা’র প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারণ সম্পাদক তাহসিন বাহার সূচনা এবং কুমিল্লা ক্রিকেট কমিটির সভাপতি ও বিসিবির কাউন্সিলর সাইফুল আলম রনি ভাইয়ের প্রতি সবসময় শিশু পরিবার কৃতজ্ঞ।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!