২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লা শহরের বিভিন্ন স্থানে কোরবানির গরু চুরি

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
কুমিল্লা নগরীসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে কোরবানির গরু চুরি হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। গভীর রাতে এসব চুরির ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে জেলায়।

এর মধ্যে শনিবার (১৫ জুন) গভীর রাতে কুমিল্লা নগরীর ঠাকুরপাড়া বড় মসজিদ এলাকার ভাটরা হাউজে তালা ভেঙে তিনটি গরু চুরি হয়।

ওই হাউজের হাসান মাহমুদ হায়দারের এক লাখ ২২ হাজার টাকার একটি, ভাড়াটিয়া আনোয়ার হোসেনের একই দামের আরেকটি এবং ডা. আবু হাসেমের ৮৫ হাজার টাকা দামের একটিসহ মোট তিনটি গরু চুরি হয়। অভিযোগ পেয়ে রোববার (১৬ জুন) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ।

হাসান মাহমুদ সাংবাদিকদের বলেন, আমার একটি ও দুই ভাড়াটিয়ার দুটিসহ তিনটি গরু শনিবার গভীর রাতে চুরি হয়ে যায়। বাসার দেওয়াল টপকে গেটের তালা ভেঙে গরুগুলো নিয়ে যায় চোরের দল। আমাদের ভাড়াটিয়ারা রাত ৩টা পর্যন্ত জেগে ছিলেন।

রাত পৌনে ৪টার দিকে গাড়ির শব্দ শুনে আরেক ভাড়াটিয়া জেগে ওঠেন। তিনি দেখেন পিকআপ ভ্যানে করে তিনটি গরু নিয়ে যাচ্ছে চোরের দল। পরে আমরা পেছনে তাড়া করে দেখি রামমালা হয়ে কোটবাড়ির দিকে নিয়ে গেছে গরুগুলো।

এ বিষয়ে কুমিল্লা কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ হোসেন বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। বিভিন্ন স্থান থেকে সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। আশা করছি, অপরাধীদের আটক করতে সক্ষম হবো।

এদিকে, জেলার চৌদ্দগ্রামেও চুরির খবর পাওয়া গেছে। উজিরপুর ইউনিয়ন মিয়াবাজার সংলগ্ন শুয়ারখিল গ্রামে ঘটে এ ঘটনা।

স্থানীয় মৃত আব্দুল মান্নান মেম্বারের ছেলে মিজানুর রহমান কোরবানির জন্য শুক্রবার এক লাখ ৭০ হাজার টাকা দিয়ে গরু কেনেন। শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে গরুটি চুরি হয়ে যায়। চুরি হওয়ার বিষয়টি সকালে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে শনাক্ত করা হয়।

গরুর মালিক মিজানুর রহমান বলেন, গত দুদিন ধরে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও গরুর কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।

অপরদিকে, কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার সাতরা চম্পকনগর থেকে শনিবার দিবাগত ভোররাতে সাইফুল ইসলামের এক লাখ ৫০ হাজার টাকার একটি গরু চুরি হয়ে যায়।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!