bn বাংলা
৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৫ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

খুশকি মুক্ত চুলের জন্য শ্যাম্পু

নিয়মিত শ্যাম্পু ব্যবহার না করা অর্থাৎ চুল ঠিক মতো পরিষ্কার না করলে খুশকি হয়।

এছাড়া অতিরিক্ত মানসিক চাপ, আর্দ্রতা, বংশগত কারণ ইত্যাদি কারণেও খুশকির সমস্যা দেখা দিতে পারে।

খুশকি ভালোভাবে দূর করার কয়েকটি পন্থা এখানে দেওয়া হল।

সঠিক পণ্য ক্রয়:

খুশকির সমস্যা থাকলে অবশ্যই ভালো মানের পরিষ্কারক শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে। এক্ষেত্রে জিঙ্ক প্যারিথিয়ন সমৃদ্ধ ‘ক্লিয়ার হিজাব শ্যাম্পু’ ব্যবহার করা যেতে পারে। এটা খুশকি দূর করার উপাদান হিসেবে কাজ করে। আর সাদা দানাদার অংশ একেবারেই দূর করতে সাহায্য করে। শ্যাম্পু করার সময় মাথা ভালো মতো ধুয়ে পরিষ্কার করুন।

চুল আঁচড়ানো:

বার বার চুল আঁচড়ানো মাথার ত্বককে এক্সফলিয়েট করার পাশাপাশি আরও তেল উৎপাদনে সহায়তা করে। চাইলে প্লাস্টিক বা হাড়ের চিরুনি ব্যবহার করতে পারেন, যা চুলে তেল সরবারহ করতে, চুলের ফলিকল উন্মুক্ত করতে এবং চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে।

মাথার ত্বক এক্সফলিয়েট করা:

কথাটা শুনতে নতুন লাগলেও এটা খুশকি দূর করতে খুব ভালো কাজ করে। মাথার ত্বক এক্সফলিয়েট করতে ঘন দাঁতের চিরুনি ব্যবহার করুন। মাথার ত্বকে চিরুনি দিয়ে আঁচড়ানোর ফলে মৃত কোষ দূর হয়। আর মাথার ত্বক সংবেদনশীল হলে ‘হেয়ার মাস্ক’ ব্যবহার করুন। এতে অতিরিক্ত তেল এবং জমে থাকা ময়লা ও প্রসাধনীর বাড়তি অংশ দূর হবে।

নিয়মিত চুল পরিষ্কার করা:

চুলের গোড়ায় ময়লা জমে বন্ধ হলে খুশকির উপদ্রব হয়। উৎপাদিত ময়লা দূর করতে নিয়মিত চুল পরিষ্কার করা উচিত। সপ্তাহে দুতিনবার ‘ক্লিয়ার হিজাব শ্যাম্পু’দিয়ে চুল পরিষ্কার করা এবং মাথার ত্বক মালিশ করা জরুরি।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!