bn বাংলা
২রা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৮ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পরস্ত্রীর প্রতি ইমামের কুনজর : জড়িত নিহতের স্ত্রী গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক
রাজধানীর দক্ষিণখানে মসজিদের সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে নিখোঁজ যুবকের ছয় টুকরা মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনাকারী ভুক্তভোগী আজহারের স্ত্রী আসমা আক্তারকে (২২) গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১।

মঙ্গলবার (২৫ মে) সন্ধ্যায় রাজধানীর আব্দুল্লাহপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানান র‍্যাব সদর দফতরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

তিনি বলেন, রাজধানীর দক্ষিণখানের বাসিন্দা আজহারের স্ত্রীর প্রতি কুনজর ছিল দক্ষিণখানের সরদার বাড়ি জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা আব্দুর রহমানের। বিষয়টি জানার পর ইমামকে নিষেধ করতে মসজিদে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে যাওয়ার পর বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে ধারালো ছুরি দিয়ে আজহারের গলায় আঘাত করেন ইমাম। এরপর মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর আজহারের মরদেহ ছয় টুকরা করা হয়। এরপর মসজিদের সেপটিক ট্যাঙ্কে মরদেহের টুকরোগুলো লুকিয়ে রাখেন ইমাম। ইমাম পুরো কাজটি করেন দক্ষিণখানের সরদার বাড়ি জামে মসজিদে তার শয়ন কক্ষে।

কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, এই ঘটনায় পেছনে নিহত আজহারের স্ত্রীর ইন্ধন পেয়েছে র‍্যাব। তার নির্দেশ মোতাবেক এই হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে প্রাথমিক তদন্তে তার (আসমা আক্তার) সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে।

এর আগে, মঙ্গলবার ভোরে ভিক্টিম আজহার নিখোঁজের ঘটনায় দক্ষিণখানের সরদার বাড়ি জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা আব্দুর রহমানকে গ্রেফতার করে র‍্যাব।

এর আগে সোমবার (২৪ মে) মসজিদের সিঁড়িতে রক্তের দাগ ও সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে দুর্গন্ধ বের হচ্ছিল। এছাড়াও আজহার ১৯ মে থেকে নিখোঁজ ছিলেন। এমন ঘটনায় অনুসন্ধান শুরু করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পরে র‍্যাব ইমামকে আটক করে এবং জিজ্ঞাসাবাদে হত্যার ঘটনা জানতে পারে। এ সময় অভিযুক্তের কাছ থেকে হত্যায় ব্যবহৃত তিনটি চাকু ও মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!