২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভারতে টানা তিন দিন নতুন আক্রান্ত দেড় লক্ষাধিক

ভারতে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে করোনাভাইরাস সংক্রমণ। অবস্থা এতই খারাপ যে টানা তিন দিন ধরে দেড় লাখেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে দেশটিতে করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ১ লাখ ৬১ হাজার ৭৩৬ জন। এ সময়ের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৮৭৯ জনের।

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে কলকাতার গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা।

এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে মোট ১ কোটি ৩৬ লাখ ৮৯ হাজার ৪৫৩ জনের শরীরে। গত কয়েক সপ্তাহে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ব্রাজিলকে টপকে মোট আক্রান্তের দিকে দিয়ে ফের দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১ লাখ ৭১ হাজার ৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনাভাইরাসে।

বর্তমানে ভারতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১২ লাখ ৬৪ হাজার ৬৯৮ জন। ফলে হাসপাতাল, এবং স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতে দেখা দিয়েছে সঙ্কট। যে সব রাজ্যে সংক্রমণ বেশি সেখানকার স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলোতে রোগীদের সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়া ছবি-ভিডিওতে দেখা গেছে, চেয়ারে বসেই অক্সিজেন, স্যালাইন নিচ্ছেন রোগীরা। ছত্তিশগড়ের রায়পুরের সবচেয়ে বড় সরকারি হাসপাতালে পড়ে আছে করোনা রোগীদের মরদেহ। দৈনিক মৃত্যু সেখানে যে হারে বেড়েছে, যার জেরে মর্গে মরদেহ রাখারও জায়গা হচ্ছে না।

এই পরিস্থিতি থেকে পরিত্রাণের জন্য সংক্রমণ কমানোর উদ্যোগ নিয়েছে বিভিন্ন রাজ্যের প্রশাসন। ইতোমধ্যেই একাধিক রাজ্যে এবং বড় বড় শহরে জারি রয়েছে নৈশকালীন লকডাউন। আংশিক লকডাউনও জারি হয়েছে কয়েকটি রাজ্যে। বেশ কয়েকটি রাজ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ফের বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বোর্ডের পরীক্ষা বাতিল হয়েছে মহারাষ্ট্রেও। সেখানে পরিস্থিতি বিবেচনায় সম্পূর্ণ লকডাউন করার চিন্তাভাবনাও করছে রাজ্য সরকার।

চলমান এই সঙ্কটের মধ্যেই ভারতে চলছে করোনা টিকাদান কর্মসূচি। এই মুহূর্তে ৪৫ বছরের বেশি সব সাধারণ নাগরিককে টিকা দেয়া হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে টিকা দেয়া হয়েছে ৪০ লাখ ৪ হাজার ৫২০ জনকে। এখন পর্যন্ত মোট ১০ কোটি ৮৫ লাখ ৩৩ হাজার ৮৫ ডোজ টিকা দিয়েছে ভারত।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!