bn বাংলা
২রা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৮ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আরেক দফা ‘বাড়ছে’ বিধিনিষেধ, থাকছে নতুন শর্তও!

নিউজ ডেস্ক
সম্প্রতি দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনকভাবে বেড়ে যাওয়ায় প্রথমে বিধিনিষেধ এবং পরে সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করা হয়। টানা দেড় মাসেরও বেশি সময় শর্তসাপেক্ষে লকডাউন অব্যাহত থাকায় করোনার সংক্রমণ খানিকটা কমে এসেছে। সর্বশেষ বাড়ানো বিধিনিষেধ বা লকডাউন শেষ হচ্ছে আজ রোববার মধ্যরাতে।

এদিকে, দেশের ভেতরে সংক্রমণ কমে আসলেও সীমান্তবর্তী এলাকায় করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট বা ধরন শনাক্ত হওয়ার ঘটনা সরকারের সংশ্লিষ্টদের ভাবিয়ে তুলেছে। এ অবস্থায় চলমান বিধিনিষেধ আরো এক দফা তথা এক সপ্তাহের জন্য বাড়ানো হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। সেইসঙ্গে যুক্ত হতে পারে নতুন শর্তাবলীও।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এবং জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, চলমান বিধিনিষেধের শেষ দিন অর্থাৎ আজ রোববার নতুন শর্ত যুক্ত করে তা বাড়িয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হতে পারে। নতুন শর্ত হিসেবে সীমান্তবর্তী জেলার মানুষের চলাচলে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

এর আগে বিধিনিষেধের মেয়াদ শেষ হয় গত ২৩ মে। এর পর তা বাড়িয়ে ৩০ মে পর্যন্ত করা হয়। সর্বশেষ ঘোষণায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে আন্তঃজেলাসহ সব ধরনের গণপরিবহন আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচলের সুযোগ দেওয়া হয়। একই সঙ্গে হোটেল-রেস্তোরাঁ ও খাবার দোকানসমূহে সেবা প্রদানের সুযোগ দেওয়া হয়। তবে আসন সংখ্যার অর্ধেক সেবাগ্রহীতাকে সেবা দেওয়ার কথা বলা হয়।

উল্লেখ্য, দ্বিতীয় দফায় দেশে গত ৫ এপ্রিল প্রথমে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। যা চলে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত। কিন্তু তখন মানুষের মধ্যে উদাসীনতা লক্ষ করায় ১৪ এপ্রিল থেকে কঠোর তথা সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করে সরকার। পরে কয়েক দফায় বাড়িয়ে তা সর্বশেষ ৩০ মে পর্যন্ত করা হয়।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!