bn বাংলা
২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে কৃষকদের সব ধরনের সহযোগিতা করা হচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক:

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার আসার পর থেকেই কৃষকদের আর কোনো কষ্ট নেই। কারণ কৃষকদের সব ধরনের সহযোগিতা দেয়া হচ্ছে, যেন তারা অধিক খাদ্য উৎপাদন করতে পারেন। কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাবে চলমান উৎপাদনকে দুই থেকে তিনগুণ বাড়ানোর জন্যে কৃষকদের পাশে আছে সরকার।

কৃষকলীগের ৪৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সোমবার রাতে দেয়া ভার্চুয়াল বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। প্রায় পৌনে ৮ মিনিটের ভিডিও বার্তায় প্রধানমন্ত্রী চলমান কোভিড-১৯ এর সময় উৎপাদন বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করেন।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বাংলাদেশের সব কৃষক-কৃষাণীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারা রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে মাথার ঘাম পায়ে ফেলে খাদ্য উৎপাদন করেন। সেই খাদ্য খেয়েই আমরা বেঁচে থাকি। কাজেই তাদের প্রতি আমাদের সব সময় সমর্থন রয়েছে এবং তাদের সহযোগিতা করা আমাদের কর্তব্য মনে করি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বর্গাচাষিরা যেন বিনা জামানতে ঋণ পান সেই ব্যবস্থাও আমরা করেছি। বর্তমানে তারা কৃষি ব্যাংকের মাধ্যমে বিনা জামানতে ঋণ পাচ্ছেন। বিএনপির আমলে সারের দাম ছিল ৯০ টাকা, আজ আমরা ১২ টাকায় নামিয়ে এনেছি।

তিনি বলেন, আমরা গবেষণার মাধ্যমে উন্নত বীজ উৎপাদন করছি এবং সেই বীজ সরবরাহ করছি। আমরা চাই, কৃষিভিত্তিক অর্থনীতি আমাদের এগিয়ে নিয়ে যাবে। কৃষি অর্থনীতির সঙ্গে সঙ্গে আমরা শিল্পের দিকেও বিশেষ নজর দিয়েছি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা সব থেকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছি গবেষণার ওপর। ১৯৯৬ সালে যখন সরকার গঠন করি, তখন থেকেই কৃষি গবেষণায় আমরা গুরুত্ব দেই। গবেষণার ফলে আরো নতুন নতুন ধরনের ফসল উৎপাদন করা হচ্ছে। তরি-তরকারি, ফল-মূল এবং দানাদার খাদ্যশস্য থেকে শুরু করে সব ধরনের পণ্য উৎপাদন করার জন্যে ব্যাপকভাবে গবেষণা হচ্ছে এবং উন্নতমানের বীজ আমরা সরবরাহ করছি।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!