bn বাংলা
৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গভীর রাতে আগুনে পুড়ল ১২টি দোকান

লাকসাম প্রতিনিধি

ফায়ার সার্ভিস জানায়, ‘অগ্নিকাণ্ডের সময় তীব্র পানির সংকট ছিল। আমরা সঙ্গে করে ১৮০০ লিটার পানি নিয়ে যাই। যা আগুন নেভানোর জন্য যথেষ্ট ছিল না। পরে বাজারের অনেকটা দূর থেকে পানি সংগ্রহ করি।’

কুমিল্লার লাকসামে বাজারে লাগা আগুনে পুড়েছে ১২টি দোকান। তবে এতে কেউ হতাহত হননি। ব্যবসায়ীদের দাবি, আগুনে পুড়ে কয়েক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

লাকসামের দৌলতগঞ্জ বাজারে রোববার রাত পৌনে ২টার দিকে এই অগ্নিকাণ্ড ঘটে।

লাকসাম ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার শাহাদাৎ হোসেন বলেন, ‘রাত ১টা ৫৭ মিনিটে আগুনের খবর পাই। আমরা তিনটা টিম ও কুমিল্লা সদর দপ্তর অফিস থেকে একটি টিম মিলে ঘণ্টা খানেকের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনি।

‘তবে অগ্নিকাণ্ডের সময় তীব্র পানির সংকট ছিল। আমরা সঙ্গে করে ১৮০০ লিটার পানি নিয়ে যাই। যা আগুন নেভানোর জন্য যথেষ্ট ছিল না। পরে বাজারের অনেকটা দূর থেকে পানি সংগ্রহ করি।’

স্থানীয় লোকজন ও বাজারের ব্যবসায়ীরা জানান, বাজারের নোয়াখালী রেলগেটসংলগ্ন টিঅ্যান্ডটি মার্কেট ও আশপাশের দোকানে আগুন লাগে। এতে পুড়ে যায় কনফেকশনারি, ইলেকট্রিক ও ওষুধের ১২টি দোকান।

কোন দোকান থেকে কীভাবে আগুন লেগেছে, তা নিশ্চিত করেনি ফায়ার সার্ভিস। ধারণা করা হচ্ছে, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এর সূত্রপাত।

খবর পেয়ে রাতেই সেখানে যান লাকসাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) একেএম সাইফুল আলম। তিনি জানান, ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের তালিকা তৈরি করে প্রশাসন থেকে সহযোগিতা করা হবে।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!