২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে অস্ত্রসহ দুইজন পেশাদার সন্ত্রাসী ছিনতাইকারী গ্রেফতার

চট্টগ্রাম ব্যুরোঃ
নগরীর কোতোয়ালী থানাধীন টেরীবাজার আফিসের মায়ের গলি ও বাকলিয়া থানাধীন তক্তারপুল এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুই ছিনতাইকারীকে আটক করে কোতয়ালী থানা পুলিশ।

এসময় একটি দেশীয় তৈরী এলজি, ২ রাউন্ড কার্তুজ, ১টি টিপ ছোরা, ১টি মোবাইল, নগদ ৪ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

শুক্রবার ১১ জুন সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয় বলে কোতোয়ালী থানা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে।

আটককৃত আসামিরা হলেন, নগরীর বাকলিয়া থানাধীন কালামিয়া বাজার শক্কুর জমিদারের কলোনী এলাকার মোঃ ইউসুফ মিয়ার ছেলে মোঃ সাদ্দাম হোসেন (৩০) বাকলিয়া থানাধীন কালামিয়া বাজার শাহজাহান মোল্লার কলোনীর আব্দুল কাদেরের ছেলে মোঃ রনি (২৫)।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়,গত ১০ জুন সকালে প্রকৌশলী অরুপ রতন দাশ (৪২) কোতোয়ালী থানাধীন ঘাটফরহাদবেগ হাজী হাকিম আলী রোডস্থ ইভ টেইলার্স দোকানের সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় অজ্ঞাতনামা ৩ জন তার কাছ থেকে ১টি স্যামসাং মোবাইল,২টি এটিএম কার্ড, ১টি পরিচিতি কার্ড ও নগদ ৪ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এই ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে কোতোয়ালী থানায় মামলা দায়ের করে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মোহাম্মদ আইয়ুব উদ্দিন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতোয়ালী থানাধীন টেরীবাজার আফিমের মায়ের গলির মুখে রাস্তার উপর থেকে মামলার ২নং আসামী মোঃ রনি (২৫)কে ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত ১টি মোটা চাকার ব্যাটারী চালিত অটো রিক্সাসহ আটক করা হয়।

তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে সে উক্ত ছিনতাইয়ের কথা স্বীকার করে। এসময় তার দেহ ও তাহার চালিত অটোরিক্সা তল্লাশী করে অটোরিক্সার ভিতরে ১টি স্টীলের টিপ ছোরা, ছিনতাইকৃত ৪ হাজার টাকা ও ১টি ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা জব্দ করা হয়।

তিনি জানান, পরে আসামী মোঃ রনিকে সাথে নিয়ে বাকলিয়া থানাধীন তক্তারপুল এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এসময় আবু জমিদারের কলোনীর পিছনে একটি ডোবায় লাফ দিয়ে পালানোর চেষ্টাকালে কৌশলে ময়লা পানিযুক্ত ডোবা হতে আটক করা হয়। পরে তার দেহ তল্লাশী করে পরিহিত প্যান্টের ডান পকেট হতে ছিনতাইকৃত ১টি স্যামসাং মোবাইলটি উদ্ধার করা হয়।

কোতোয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন জানান, একটি মামলার সুত্র ধরে নগরীর চিহ্নিত দুই ছিনতাই কারীকে আটক করা হয়। আসামীদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তাদের ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত অস্ত্র (দেশীয় এলজি) মোঃ সাদ্দাম হোসেনের ছোট ভাই আমজাদের বাসার ভিতরে খাঁটের নীচ থেকে উদ্ধার করা হয়।

আসামীরা পেশাদার ছিনতাইকারী ও সন্ত্রাসী। মোঃ সাদ্দাম হোসেন গত ১ সপ্তাহ পূর্বে জেলখানা থেকে জামিনে বের হয়ে পুনরায় ছিনতাই কাজে জড়িয়ে পড়ে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য যে, মোঃ সাদ্দাম হোসেন এর বিরুদ্ধে সিএমপি’র হালিশহর থানায় ১টি, বাকলিয়া থানায় ১টি ও কোতোয়ালী থানায় ১টি মামলা এবং মোঃ রনি এর বিরুদ্ধে ১টি মামলা রয়েছে

আরো দেখুন
error: Content is protected !!