২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অনলাইন ভ্যাট রিটার্ন দাখিলে চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা

নিজস্ব প্রতিনিধি
কুমিল্লা কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেটের কমিশনার বেলাল হোসাইন চৌধুরী জানান, নানান প্রতিকূলতা থাকা সত্ত্বেও সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই সফলতা অর্জন করা সম্ভব হয়েছে। অনেক কর্মকর্তা স্বেচ্ছায় শুক্রবার ও শনিবারের সাপ্তহিক ছুটি বাতিল করে অনলাইন রিটার্ন দাখিলের কাজ অগ্রাধিকার দেন। এমন কর্মতৎপরতায় কুমিল্লা ভ্যাট টিম দশমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হতে পেরেছে।

অনলাইন ভ্যাট রিটার্ন দাখিলে সারা দেশে ১২টি ভ্যাট কমিশনারেটের মধ্যে টানা দশমবারের মতো শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে কুমিল্লা কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট।

বুধবার দেশসেরা হওয়ার আনুষ্ঠানিক এই ঘোষণা আসে। ঘোষণার পর দেশসেরার কৃতিত্ব ধরে রাখার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন ভ্যাট কমিশনারেটের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা।

জানা যায়, মে মাসে ৮৮.৫৬ শতাংশ রিটার্ন অনলাইনে জমা করেছে কুমিল্লার ভ্যাটদাতারা।

কুমিল্লা কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেটের কমিশনার বেলাল হোসাইন চৌধুরী জানান, কুমিল্লা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চাঁদপুর, ফেনী, নোয়াখালী ও লক্ষ্মীপুর জেলা নিয়ে গঠিত কুমিল্লা ভ্যাট কমিশনারেট ।

নানান প্রতিকূলতা থাকা সত্ত্বেও সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই সফলতা অর্জন করা সম্ভব হয়েছে। অনেক কর্মকর্তা স্বেচ্ছায় শুক্রবার ও শনিবারের সাপ্তহিক ছুটি বাতিল করে অনলাইন রিটার্ন দাখিলের কাজ অগ্রাধিকার দেন। এমন কর্মতৎপরতায় কুমিল্লা ভ্যাট টিম দশমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হতে পেরেছে।

প্রথমে হ্যাটট্রিক, তারপর ডাবল হ্যাটট্রিক, এরপর ট্রিপল হ্যাটট্রিক। আর এবার যেন নিজেকেই ছাড়িয়ে গেল কুমিল্লা ভ্যাট কমিশনারেট।

সফলতার অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে কুমিল্লা সদর দপ্তরের সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ ছালাউদ্দিন রিপন বলেন, ‘মহামারি আছে, থাকবে। তাই বলে দেশের অর্থনীতির ভিত দুর্বল হতে দেয়া যাবে না। দলবদ্ধ প্রচেষ্টা ও প্রতিযোগিতা এ অভূতপূর্ব সাফল্যের মূল নিয়ামক। কুমিল্লা কমিশনারেটের নেয়া ব্যতিক্রমী উদ্যোগ কুমিল্লাকে সেরার আসন ধরে রাখতে সহায়তা করেছে। কুমিল্লার এই সাফল্য অন্যান্য কমিশনারেটগুলোর মধ্যে তৈরি করেছে নতুন উদ্দীপনা। ফলে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সামগ্রিক রিটার্ন পেশের হার বাড়ছে।’

পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের জুলাই ২০২০ মাসের অনলাইন রিটার্ন দাখিলের হার ছিল ২৫.১৮ শতাংশ, যা এপ্রিল ২০২১ এ দাঁড়ায় ৪২.৪৮ শতাংশে। অন্যান্য কমিশনারেটগুলোর মধ্যেও চট্টগ্রাম, রাজশাহী, রংপুর, সিলেট, ঢাকা (উত্তর), ঢাকা (দক্ষিণ), ঢাকা (পূর্ব) ও ঢাকা (পশ্চিম)-এর রিটার্ন দাখিলের হার ক্রমান্বয়ে প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। কুমিল্লা কমিশনারেটের আগস্ট মাসের রিটার্ন দাখিলের হার ৯১.১৮শতাংশ, সেপ্টেম্বর মাসে ৯৩.৮৭ শতাংশ, অক্টোবর মাসে ৯৪.১৬ শতাংশ, নভেম্বর মাসে ৯৩.৮০ শতাংশ, ডিসেম্বর মাসে ৯৪.৯৯ শতাংশ, জানুয়ারি মাসে ৯৭.০৯ শতাংশ, ফেব্রুয়ারি মাসে ৯৭.২৮ শতাংশ, মার্চ মাসে ৯৫.৪৭ শতাংশ, এপ্রিল মাসে ৯৬.০৮ শতাংশ ও মে মাসে ৮৮.৫৬ শতাংশ।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!