২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ বড় ভাই ইলিয়াছকে কুপিয়ে হত্যা করল ছোট ভাই

নিজস্ব প্রতিবেদক।।
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে বড় ভাই মো. ইলিয়াছকে (৫০) কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে বাহার মিয়ার বিরুদ্ধে। উপজেলার বাতিসা ইউনিয়নের চাঁন্দকরা মধ্যমপাড়া গ্রামে বুধবার (২৬ জুন) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক জামিল রেজা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে বসতবাড়ির জায়গা নিয়ে বড় ভাই ইলিয়াছের সঙ্গে ছোট ভাই বাহারের বিরোধ চলে আসছে।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ হতো। বুধবার সন্ধ্যায় এ বিষয় নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে ঝগড়া লাগে।

এসময় বাহার মিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে ধারালো দা দিয়ে এলোপাতাড়ি ইলিয়াছকে কুপিয়ে জখম করে। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়।

প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করলে পথিমধ্যে তার মৃত্যু হয়।

নিহত ইলিয়াছের চাচাতো ভাই আবদুল মান্নান জানান, দুই ভাইয়ের মধ্যে বসতভিটার জায়গা নিয়ে দীর্ঘদিন বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধ নিয়ে বুধবার সন্ধ্যায় দুই ভাই ঝগড়ায় লিপ্ত হয়। ক্ষিপ্ত হয়ে বাহার ধারালো দা দিয়ে বড় ভাই ইলিয়াছকে কুপিয়ে জখম করে। হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এছাড়া বাহার একজন মাদকাসক্ত।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল লতিফ বলেন, অভিযুক্ত বাহার মাদকাসক্ত। বসতভিটার বিরোধকে কেন্দ্র করে বাহার প্রায়ই ইলিয়াছের উপর হামলা করে। বুধবার সন্ধ্যায় বাহার আবারো ধারালো দা দিয়ে ইলিয়াছকে আঘাত করে।

কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক জামিল রেজা বলেন, ‘ইলিয়াছ নামের এক ব্যক্তিকে সন্ধ্যা ৭টার দিকে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসে তার স্বজনরা। আমরা পরিক্ষা করে দেখি তিনি মারা গেছেন। তার পিঠে একাধিক ধারালো অস্ত্রের গভীর ক্ষত রয়েছে।’

চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ত্রিনাথ সাহা জানান, বিষয়টি মুঠোফোনের মাধ্যমে তিনি জেনেছেন। পূর্ব বিরোধের জের ধরে ছোট ভাই বড় ভাইকে কুপিয়ে আহত করেছেন। কুমেক হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়েছে। তবে পুলিশ এখনো ভিকটিমের লাশ বুঝে পায়নি।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!