bn বাংলা
৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মুন্সীগঞ্জ সদরে মুক্তারপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ঝরে গেল দুটি প্রাণ

🌼সাবিনা সিদ্দিকী শিবা 🌼
কবি ও ঔপন্যাসিক

বড্ড অভিমানী আমার খোকা,
বাবারে এভাবে চলে যেতে হয়??
একবারও ভাবলিনা তোর মায়ের কথা।
কে মুছিয়ে দিবে তোর মায়ের চোখের জল।
কখনও কি ঘুচবে তোর মায়ের বুকের ব্যথা?

এতো অল্পতেই বাইক নামের ঘাতকের আঘাতে,
তোর নিষ্পাপ মুখটি হয়ে গেলো ক্ষত-বিক্ষত।
আজকের দিনটি আর আসেনা যেন
হতভাগী কোন মায়ের জীবনে হয়ে গত।

তোর রক্তে রঞ্জিত আজ মুন্সিগঞ্জের পিচঢাল রোড,
কি করে বুকের কষ্ট হাতরাবো আমি রোজ?
মা নই আমি তোর,তবুও তুই আমার সন্তান
বুকের হাহাকারে আজ গর্জে উঠছে আমাার প্রাণ।

বাবারে এতো অল্পতে যেতে হয়না
ছেড়ে মায়ের বুক,
কি করে আজ তুই মাটির ঘরে ঘুমাবি,ছেড়ে।
দুঃখিনী মায়ের ভালোবাসার পরশ মাখা ঘামের,
ঐই সোঁদা মাটির গন্ধের সব পরশ কেড়ে।

নেইতো আর ফেরানোর কোন অটুট রাস্তা জানা,
তবুও থাকবে মা অপেক্ষায় তোর গন্তব্য ঠিকানা।
পারিস যদি ক্ষমা করিস,
আমাদের হীনমন্যতার কে,আমরাই তুলে দেই বাইক নামের ঘাতক জানা শর্ত।।

এই সেই মোটরবাইক
আমার ছেলের সবচেয়ে প্রিয় বন্ধুটি আজ বাইক এক্সিডেন্টে না ফেরার দেশে চলে গেলো। বুকের ভেতর কষ্ট জমা হতে হতে পাহাড় হয়ে যাচ্ছে।

আমার ছেলে নয় ওর বন্ধু কিন্তু আমি একজন মা। কোন মতে মেনে নিতে পারছিনা তবে ওর জন্মদায়িনী মা কি করবে এখন আদরের সন্তান হারিয়ে।। দুই ভাই এক বোনের মধ্যে সায়ের ছিলো বড়। ধনাঢ্য বাবার হৃদয়বান ছেলে। বড় লোক বাবার আদরের সন্তান হলেও আমি কখনও ওর মাঝে উশৃংখলতা দেখিনি। সব সময় নম্র ভদ্র শান্ত দেখেছি। যার বুকে ছিলো সমুদ্রের স্রোতে মতো বিশাল ভালোবাসা। পরকেও, পন করার অফুরান প্রানের স্পন্দন।

ভালো মানুষ কেন যে তাড়াতাড়ি খোদার কাছে নিয়ে যায় বুঝিনা। আমিতো পারছি না ওকে এক মুহুর্তে ভুলতে।পারছিনা চোখের সামনে থেকে ওর সদা হাসিখুশি মুখটি সরাতে। তাহলে ওর মা আদরের বড় সন্তানটিকে কেমন করে ভুলে থাকবে।

হে আল্লাহ ,
তুমি ওর মা বাবা তথা পরিবারকে ধৈর্য ধরার তৌফিক দন করো আর শত চেষ্টা করলেও আমরা আমাদের আদরের আহমেদ “সায়ের” কে ফিরে পাবোনা। পারবোনা ফিরিয়ে দিতে ওদের শোকাহত পরিবারের মুখে হাসি ফুটাতে।

আমি একজন মা,আমারও একটি সন্তান আছে। আমি চাই আর কোন বাবা মা তার আদরের সন্তান কে মরন ঘাতক বাইক তুলে দেখ হাতে।

কি হবে এখন ওর বাবার কোটি টাকার সম্পদ। তার যে সবচেয়ে বড় সম্পদ। তাই তো চিরকালের জন্য হারিয়ে গেলো। আল্লাহ তুমি আমাদের ছেলেটাকে ওপারে ভালো রাখিও। আমীন ছুম্মা আমীন,,,

আরো দেখুন
error: Content is protected !!