bn বাংলা
২রা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৮ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রাশিয়া থেকে আসছে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের রিঅ্যাক্টর

নিউজ ডেস্ক

বাংলাদেশে পরমাণু বিদ্যুতের রিঅ্যাক্টর পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু করেছে রুশ প্রতিষ্ঠান অটোম্যাশ। রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য এই রিঅ্যাক্টর পাঠানো হচ্ছে। মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ড. শৌকত আকবর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ড. শৌকত আকবর জানান, প্রতিটি রিঅ্যাক্টর ও স্টিম জেনারেটরের ওজন ৩৪০ টন এবং এর দৈর্ঘ্য যথাক্রমে ১২ ও ১৪ মিটার। এগুলোকে প্রথমে প্লান্টের বিশেষ বার্থে নেওয়া হবে এবং সেখান থেকে যন্ত্রাংশগুলোকে জাহাজে করে জলপথে নভোরোসিস্কে নেওয়া হবে। সেখান থেকে এগুলো ১৪ হাজার কিলোমিটার সমুদ্রপথ পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে পৌঁছাবে।

এই রিঅ্যাক্টরের প্রস্তুতকারক রাশিয়ার জেএসসি এইম টেকনোলোজি। প্রতিষ্ঠানটির ডিরেক্টর জেনারেল ইগোর কটভ এ বিষয়ে মতামত দিতে গিয়ে বলেন, ‘রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাংলাদেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প। চুক্তির নিয়ম অনুযায়ী এই পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের দ্বিতীয় ইউনিটের মূল যন্ত্রাংশগুলো ঠিক সময়মতো পাঠানো হচ্ছে। যা সম্ভব হয়েছে আমাদের কার্যকর মিথষ্ক্রিয়া ও আমাদের উপরে ভরসা রাখার জন্যে। এখন পর্যন্ত এটি এই আয়তনের শেষ চালান। এটি পারমাণবিক শিল্পে বাংলাদেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আমাদের প্রথম পদক্ষেপ। আমি বিশ্বাস করি, আমাদের এই সহযোগিতা যেকোনও প্রকারে বজায় থাকবে।’

তিনি আরও জানান, রিঅ্যাক্টর প্লান্ট প্রস্তুতি অত্যন্ত উচ্চ প্রযুক্তির একটি কাজ, যার দক্ষতা বিশ্বে গুটিকয়েক দেশের আছে। জেএসসি এইম টেকনোলজি রাশিয়ার একমাত্র কোম্পানি যা পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্টিম জেনারেটিং প্লান্টের সম্পূর্ণ অংশ তৈরি করে।

উল্লেখ্য, রূপপুর পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র বাস্তবায়নের কাজ করছে রাশিয়ার রোসাটম’র প্রকৌশল বিভাগ। এই কেন্দ্রে দুটি ইউনিট থাকবে। এতে ভিভিইআর-১২০০ রিঅ্যাক্টর বসানো হবে।

আরো দেখুন
error: Content is protected !!